Twitter

Follow palashbiswaskl on Twitter

Monday, August 17, 2015

# সর্বোপরি খাগড়াগড় নিয়ে হিন্দুত্ববাদীরা সমাজে সাম্প্রদায়িক বিষ ছড়িয়ে সামাজিক বিভাজন নিশ্চিত করেছিলেন অথচ তথাকথিত মুসলিম সংগঠন গুলি যারা নিজেদের 'হনু' ভেবে থাকেন তাঁরা এখনও হয়ত খবরটি পাননি । পেলেও গুরুত্ব দেননি।

"গণমাধ্যম, প্রশাসন তথা রাজনৈতিক দলগুলির দ্বৈত অবস্থান "

গত 15 ই আগষ্ট দমদমের মতিলাল কলোনিতে বিস্ফোরণ এর ঘটনায় তথাকথিত সার্বজনীন গণমাধ্যম গুলি আশ্চর্যজনক নীরবতা পালন করল। অথচ এরাই ঐ একই রকম একটি ঘটনা খাগড়াগড় নিয়ে মশলা মাখিয়ে কি সুন্দর ভাবেই না পরিবেশন করেছিল! সমাজের বিভিন্ন স্তরে স্পষ্ট বিভাজন প্রকট করছিল ।

দুটি ঘটনা প্রায় একই রকম। আসুন মিল/অমিল গুলি খুঁজে দেখি !

# খাগড়াগড়ে এবং দমদমে উভয় ক্ষেত্রেই বাড়িটি ছিল দোতলা। দমদমে বিস্ফোরণ হয় নীচু তলায় যেখানে প্রমাণ লোপাটের কাজটি খুব সহজ। খাগড়াগড়ে বিস্ফোরণ হয়েছিল দোতলায়। যেখানে প্রমাণ লোপাট করা তুলনায় কঠিন।

# উভয় ক্ষেত্রেই বাড়ি গুলি ভাড়া দেওয়া হয়েছিল।

# উভয় ক্ষেত্রেই দূর্ঘটনাবশত বিস্ফোরণ হয় এবং মৃত্যু হয়। খাগড়াগড়ে 2 জন দমদমে 1 জন যদিও একটি সুত্রের খবর সেখানেও 2 জনের মৃত্যু হয়।

# উভয় ক্ষেত্রেই প্রচুর বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়।

# খাগড়াগড়ে মৃতদের একজন অমুসলিম ছিল স্বপন মন্ডল। যদিও তার মৃত্যুর পর তাকে মুসলিম বানিয়ে দেওয়া হয়। যা নিয়ে সর্বভারতীয় স্তরের সাহসী সাংবাদিক অজিত শাহী বিস্তারিত লিখেছেন। কিন্তু দমদমে কোনও মুসলিমের সরাসরি জড়িত থাকার কোনও খবর নেই। অর্থাৎ দমদম সম্পূর্ণ একটি সম্প্রদায়িক ঘটনা হতে পারে অথচ খাগড়াগড় অসাম্প্রদায়িক ছিল।

# খাগড়াগড়ের বাড়িটির নিচের তলায় তৃণমূল কার্যালয় ছিল বলে দাবি করা হয় কিন্তু দমদমের বাড়িটির মালিক স্থানীয় বিজেপির অতি সক্রিয় নেতা এবং ঐ বাড়ির বাসিন্দা।

# খাগড়াগড়ের বিস্ফোরণের পর আশ্চর্যজনক ভাবে বিজেপির নেতা কর্মী জমায়েত হয়ে আবহাওয়া উত্তপ্ত করে তুলে এবং মূহুর্তের মধ্যে সমস্ত গণমাধ্যমকে এনে হাজির করায়। অথচ দমদমে নিয়ে বিজেপি সাফাই দেওয়ার চেষ্টা করেছে কিন্তু বিরোধিতা বা নিন্দা করেনি। এছাড়া কোনও রাজনৈতিক দল এ নিয়ে টু শব্দটি করল না। অতি আশ্চর্যের বিষয় গণমাধ্যম বিষয়টিকে অতীব তুচ্ছ বিষয় প্রতিপন্ন করল।

# খাগড়াগড়ে তৃণমূলের সরাসরি কোনও যোগ না থাকলেও বিজেপি তথা এবপি গ্রুপ তৃণমূলেকে দায়ী করে বেগম মমতা বলে প্রচার চালায় । কিন্তু দমদমে সরাসরি বিজেপি জড়িত অথচ তৃণমূল সহ অন্যান্য দল গুলি নীরব।

# সর্বোপরি খাগড়াগড় নিয়ে হিন্দুত্ববাদীরা সমাজে সাম্প্রদায়িক বিষ ছড়িয়ে সামাজিক বিভাজন নিশ্চিত করেছিলেন অথচ তথাকথিত মুসলিম সংগঠন গুলি যারা নিজেদের 'হনু' ভেবে থাকেন তাঁরা এখনও হয়ত খবরটি পাননি । পেলেও গুরুত্ব দেননি।

নাহ.... কোনও অসৎ উদ্দেশ্য নিয়ে লেখা নয়। আমাদের দাবি, দ্বিচারিতা না করে প্রকৃত সংবাদটি প্রকাশিত হোক । কোনও ধর্ম বা সমাজকে নিশানা করে নয় , আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলি নিরপেক্ষ পদক্ষেপ গ্রহণ করুক।

লিখেছেনঃ M.m. Islam




--
Pl see my blogs;


Feel free -- and I request you -- to forward this newsletter to your lists and friends!
Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...

Welcome

Website counter

Followers

Blog Archive