Twitter

Follow palashbiswaskl on Twitter

Thursday, January 29, 2015

Bengal converted to Hinduva and the Book Fair is a Full Bloom Lotus! VHP converts Adivasi Christians in Bengal as Praveen Togadia takes over Bengal! What happened to the war cry,the crusade against communalism? What happened to the Progressive Secular and democratic Bengal? What happened to the agrarian legacy of continuous fight for Jal Jangal Jameen? What happened to the history of Buddhist Bengal?Non Aryan Bengal? Palash Biswas

Bengal converted to Hinduva and the Book Fair is a Full Bloom Lotus!

VHP converts Adivasi Christians in Bengal as Praveen Togadia takes over Bengal!

What happened to the war cry,the crusade against communalism?

What happened to the Progressive Secular and democratic Bengal?

What happened to the agrarian legacy of continuous fight for Jal Jangal Jameen?

What happened to the history of Buddhist Bengal?Non Aryan Bengal?

Palash Biswas

Though it is not the first incident.Hindutva Brigade first converted the followers of Anti Vedic,Anti Purohit Agrarian insurgency led by Harichand Thakur and Guruchand Thakur.


The Matua Movement was the first ever revolt against Manusmriti Rule in United India.Matua Family demanded citizenship just before Assembly elections and Manjul Krishna Thakur was rewarded with an insignificant ministry.Matua family forgot citizenship and cashed in further as Kapil Krishna Thakur known as Leftist crossed the fence and elevated himself as TMC MP.Manjul tried to get the ticket for his son Subrata and failed.Citizenship was again the game as Subrata Thakur launched a citizenship indefinite Hunger Strike and ended it within three days just after meeting BJP leaders behind close doors.


The very moment I wrote,the Matua Family since PR Thakur joining Congress just before partition has diverted the movement and the Non Aryan agrarian renaissance is just reduced to Hindutva.


Just for a Loksabha Ticket the legacy of Harichand Thakur Guruchand Thakur has been immersed in RSS and now,the Adivasi people follow the Matuas as Lotus blooms in Bengal,here,there and everywhere.


So much so that Calcutta Book Fair launched with seven books written and published by the Chief Minister Mamata Banerjee has been hijacked by RSS for a mass memebership drive.UNPRECEDENTED.


I am not considered a creative writer.I have no books to be launched.I am excluded from the iconic intelligentsia in Bengal and I never visited the Book Fair in the Milan Mela shifted from Kolkata Maidan and diverted from its apolitical legacy.


The Book Fair has been regimented in accordance to power politics and I stopped to visit the political fair since Bengal Politics launched a countrywide deportation drive headed by Pranab Mukherjee and Passed Citizenship Amendment Act aligning with RSS and its first NDA government.


For Bhasha Bandhan, I had to go the Book Fair even after that.

Since Nandigram Police Firing,all books launched from the political dias of the Book Fair and the business class writers and poets have been irrelevant to me.


I am sorry to say that the Book Fair is converted as well as Hindutva is the real theme as lotus blooms in the Book Fair.Nevertheless, Kolkata is set to become India's first fully Wi-Fi-enabled metro with a private ... at the inauguration of the Kolkata book fairon Tuesday evening. ... with urban youths, something that BJP was taking advantage of.Thanks to RELIANCE!


So, no wonder that Praveen Togadia managed a rare show of Ghar Wapasi in Birbhum for Bengal Adivasi People who have been involved in every agrarian insurgency, revolts and movement.


RSS may or may not win the 2016 elections,I am not sure as every politician is unpredictable and we may not who might cross the fences.

Nevertheless ,bengal goes that Hindutva ways and it is Sraswati Vandana all over.It is full bloom Durgotsav in Bengal!


I may not be sure whether Saurabh Ganguly whom I personally respect as the most intellectual Icon in India,would continue to refuse MODI invitation again and again provided he sees yet another Parivartan and a Parivartan with Lotus Blooming and Blooming.


I am not sure who is going to follow Rupa ganguly next.


For me Praveen Togadia and his VHP run through Bengal and without any resistance whatsoever.


For me the Left is  a divided House and it sustains the hegemony as well.I see no virtual chance for the Left in near future and RSS is blooming in Bengal so much so that I am afraid that someday the entire Left should convert to Hindutva.


What a pity that TMC is complaining forcible conversion while Mamata Banerjee is the Chief Minister till this date as far as my knowledge is concerned.


What happened to the war cry,the crusade against communalism?

What happened to the Progressive Secular and democratic Bengal?

What happened to the agrarian legacy of continuous fight for Jal Jangal Jameen?

What happened to the history of Buddhist Bengal?Non Aryan Bengal?

Here it is as the Hindu reports:


A TMC MLA alleged that over 100 tribals were lured to Hinduism in an event organised by the VHP in Birbhum district.

A major controversy erupted in West Bengal on Thursday over allegations of religious conversion of several tribals at Rampurhat town of the State's Birbhum district.

While the Viswa Hindu parishad (VHP) has denied any religious conversion, senior officials conformed to The Hindu that the tribals performed ceremonial offering as per Hindu practices.

"There was no 'Ghar Wapsi' (home coming) or conversion to Hiduism performed at Khurmadanga in Rampurhat area in Birbhum district. Local tribals took part in ceremonial offerings according to Hindu rituals," Sachindranath Sinha, VHP organisational secretary told The Hindu.

However, Trinamool Congress (TMC) MLA Asish Banerjee alleged that over 100 tribals who had accepted Christianity in the past were lured to Hinduism in an event organised by the VHP on Wednesday

"The incident occurred in Rampurhat town at Khurmadanga where proper religious ceremony was performed. We will take up the matter with the administration," Mr. Banerjee said.

"Officially I have not received any information on this," District Magistrate P Mohangandhi told The Hindu.

This is for the first time in recent years when row over is reported in the State.






কলকাতা আম্তর্জাতিক বইমেলা শুরু হল৷‌ বুধবার সে অর্থে প্রথম দিন৷‌ অধিকাংশ বইয়ের স্টলই তৈরি হয়ে গেছে৷‌ কিছু স্টলে চলছে শেষ মুহূর্তের কাজ৷‌ বইমেলা জমে উঠতে আরও দু'একদিন লাগবে৷‌ মিলন মেলায় সন্ধের পর বহু মানুষ এলেন৷‌ কেনার আগ্রহ এদিন তেমন চোখে পড়েনি৷‌ অনেক প্রকাশকই বছরের এই দিনটির দিকে তাকিয়ে নতুন বই প্রকাশ করেন৷‌ বইমেলার চত্বরে গতবারের মতো এবারও পটশিল্পী, নিজের ছবি আঁকান, চালের ওপর নাম লেখান৷‌...৷‌ সে সমস্ত আছে৷‌ প্লাস্টিকের বালতিতে জলের পাউচ৷‌ কফি কাপ, পিঠে-পুলি, ভাজা৷‌...৷‌ সব৷‌ লিটল ম্যাগাজিনের জন্য বরাদ্দ অঞ্চলে বহু ছোট পত্রিকার সম্পাদকরা এসেছেন৷‌ মেলা জমে উঠলে রাজ্যের নানা জায়গা থেকে লিটল ম্যাগাজিনের প্রকাশকরা আসবেন৷‌ তরুণ-তরুণী লেখকরা এখানে ভিড় জমিয়েছেন৷‌ বইমেলায় নামী প্রকাশকদের স্টলেও এবার ভিড়ের চাপ প্রথম দিকে দেখা যায়নি৷‌ রাজ্যের বাইরে থেকে অনেকেই এই সময়ে কলকাতায় আসেন৷‌ বইমেলার মাঠে দেখা হয়৷‌ কুশল বিনিময় আর নতুন বইয়ের খোঁজ– দুয়েরই সাক্ষী থাকে মিলন মেলা৷‌ এবারই দেখা গেল বই বা অন্য কোনও সামগ্রী কেনাকাটা করে ঠকে গেলে, তার জন্য অভিযোগ কেন্দ্র৷‌ বইমেলায় বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নে ওপার বাংলার প্রকাশকরা এসেছেন৷‌ আম্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন প্রকাশনা সংস্হাও হাজির৷‌ বরাবরই ছবিটা একই থাকে৷‌ মিলন মেলায় ধুলো নেই, বইয়ের দাম বাড়ে প্রতি বছর৷‌ এবারও পুনর্মুদ্রণের সাফল্যে কয়েক বছর দেখা যায়নি– এমন অনেক বই এসেছে৷‌ কবিতা থেকে ক্লাসিকস‍্, ধর্মপুস্তক থেকে বিজ্ঞানের গবেষণাগ্রম্হ, কুসংস্কার দূর করার প্রচার থেকে পুজোপার্বণ– যার মনে যা ধরে, সবই মেলে এখানে৷‌ বরাবরের মতো 'আজকাল' এবারও নতুন বইয়ের সম্ভার নিয়ে বইমেলায়৷‌ ঐতিহ্য, আজকালের ছবি৷‌ সেই ট্র্যাডিশন এবারও৷‌ দুর্দাম্ত ও অমূল্য ছবির আলাদা আকর্ষণ৷‌ এবার বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে 'রামেন্দ্রসুন্দরের বিজ্ঞান রচনা সংগ্রহ' সঙ্কলন ও সম্পাদনা শ্যামল চক্রবর্তী, অশোক দাশগুপ্ত-র নেপথ্য ভাষণ (বিংশ খণ্ড), আধুনিক বাংলা গানের 'কথা', সম্পাদনা অলক চট্টোপাধ্যায়, আজিজুল হকের একত্রে আজিজুল, কল্যাণ মুখার্জির গল্পসম্ভার অদৃষ্ট, দেবাশিস দত্তের বিলাইতি ক্রিকেট ককটেল৷‌ এ ছাড়াও পুনর্মুদ্রণ হয়েছে পীযূষকাম্তি সরকারের ভাঙাদিনের ঢেলা, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের দ্রষ্টা, জ্যোতির্ময় দত্তের বাঙ্কর৷‌ বইমেলায় ১১৪ নম্বর স্টলে৷‌ 'আজকাল'-এর পাশেই নজরকাড়া টেকনো ইন্ডিয়া-র স্টল৷‌ টেকনো ইন্ডিয়ার কর্ণধার সত্যম রায়চৌধুরি সম্পাদিত 'শ্রী রামকৃষ্ণ ফর ইউ' বইটি ইতিমধ্যেই জনপ্রিয়৷‌ বইমেলায় মাঠে এদিন আসেন সিটু-র রাজ্য সভাপতি শ্যামল চক্রবর্তী এবং সি পি এমের রাজ্যসভার সাংসদ ঋতব্রত ব্যানার্জি৷‌ ছাত্র সংগ্রাম স্টলের উদ্বোধন হয় এদিন৷‌ বইমেলায় এসেছিলেন বি জে পি নেতা তথাগত রায়৷‌ কলকাতা বইমেলায় এবারই প্রথম ন্যাশনাল স্টক এ'চে? অংশ নিল৷‌ স্টল নম্বর ৫৩৫৷‌ ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যম্ত চলবে মেলা, বাড়বে ভিড়....৷‌ বড় হবে বই-বন্ধুত্বের দীর্ঘ যাত্রা৷‌

http://www.aajkaal.net/29-01-2015/cat/1/kolkata/






ভিএইচপি-এর ধর্মান্তরণ থাবা বসাল এ রাজ্যেও, বীরভূমে ধর্মান্তরিত করা হল শতাধিক আদিবাসী ক্রিশ্চানকে

Last Updated: Wednesday, January 28, 2015 - 19:23

ভিএইচপি-এর ধর্মান্তরণ থাবা বসাল এ রাজ্যেও, বীরভূমে ধর্মান্তরিত করা হল শতাধিক আদিবাসী ক্রিশ্চানকে

বীরভূম: এ রাজ্যেও এবার ধর্মান্তরণের ঘটনা ঘটল। যে ইস্যু নিয়ে গোটা দেশ উত্তাল, সংসদে বিবৃতি দিতে হয়েছে খোদ প্রধানমন্ত্রীকে, সেই ধর্মান্তরণের ঘটনা ঘটল এই রাজ্যেও। বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সর্বভারতীয় নেতা প্রবীণ তোগাড়িয়া এবং যুগলকিশোরের উপস্থিতিতেই ধর্মান্তরণ হল। রামপুরহাটের খরমডাঙা গ্রামের এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

আজ সকালে শতাধিক ক্রিশ্চান আদিবাসী মানুষকে হিন্দু ধর্মে রূপান্তর করানো হয়। পুকুরে স্নান করে, ঘটে জল ভরে মন্দিরে পুজোপাঠ করানো হয় এই আদিবাসীদের।

পরে আহুতি এবং মন্ত্রপাঠের মাধ্যমে ধর্মান্তরণ করা হয় এই আদিবাসী ক্রিশ্চান সম্প্রদায়ের মানুষদের।

মুখে কিন্তু ধর্মান্তরণের বিরোধিতা করেছেন প্রবীণ তোগাড়িয়া। সঙ্গে অভিন্ন আইনের দাবিও তুলেছেন । যুগলকিশোরের মুখেও বিরোধিতা শোনা গেল ঠিকই, কিন্তু তাঁদের উপস্থিতিতেই ধর্মান্তরণের ঘটনা ফের নতুন প্রশ্নের জন্ম দিল। ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল।

ইতিমধ্যেই, টুইটারে এই ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও'ব্রায়েন।

http://zeenews.india.com/bengali/zila/more-than-100-tribal-christian-people-of-birbhum-converted-into-hindu-in-presence-of-praveen-togadia_124544.html


রাজ্যে সরকারি কর্মীদের নতুন সংগঠন গড়ল বিজেপি

ওয়েব ডেস্ক: রাজ্যে সরকারি কর্মীদের নতুন সংগঠন গড়ল বিজেপি। তৈরি হল নতুন সংগঠন, সরকারি কর্মচারি পরিষদ। মঙ্গলবার মৌলালি যুব কেন্দ্রের কনভেনশনে নতুন সংগঠনের সূচনা হয়। তৃণমূল সহ অন্যান্য দলের প্রভাবিত সংগঠন ছেড়ে আসা নেতা কর্মীদের নিয়েই এই কনভেনশনের আয়োজন করা হয়েছিল। এই সব সদস্যদের হাতে নতুন সংগঠনের পতাকা তুলে দেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি রাহুল সিনহা।

এদিকে,  তৃণমূলের ভাঙন ঠেকাতে এবার আসরে নামছেন খোদ  মুখ্যমন্ত্রী। আগামী ৩১ জানুয়ারি কালীঘাটে তৃণমূলের সম্প্রসারিত কোর কমিটির বৈঠক। দলের মধ্যে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে মুখ্যমন্ত্রী সেদিন কী বার্তা দেন সেদিকেই তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল। সব্যসাচী দত্ত থেকে দেবব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়, দীনেশ ত্রিবেদী। বিরাম নেই। বলেই চলেছেন। আজ সাংসদ তো কাল বিধায়ক। কারোর মুখে সরাসরি মোদীর প্রশংসা।

http://zeenews.india.com/bengali/kolkata/new-orgainisation-of-bjp-for-state-governmet-office_124520.html


চাঁদনী মার্কেটে প্রতিদিন গড়ে শুধু সানি লিওনেরই দুশোটি করে পর্ন সিডি বিক্রি হয়, বলছে পরিসংখ্যান

চাঁদনী মার্কেটে প্রতিদিন গড়ে শুধু সানি লিওনেরই দুশোটি করে পর্ন সিডি বিক্রি হয়, বলছে পরিসংখ্যান

ওয়েব ডেস্ক: আমাদের দেশে পর্নোগ্রাফির হেড কোয়ার্টার বলতে সচরাচর দক্ষিণ ভারতকেই ধরা হয়। কিন্তু বাংলাতেও নীলছবির চাহিদা বাড়ছে রমরমিয়ে। এরাজ্যে পর্নোগ্রাফির আড়ত হল কলকাতার চাঁদনীচক মার্কেট। কম টাকায় রগরগে সিনেমার পাইরেটেড সিডির জন্য বহু ক্রেতা ভিড় করেন এখানে।

সেখানে সানি লিওন অভিনীত পর্নোমুভির চাহিদা সবচেয়ে বেশি। একশো কুড়ি টাকা থেকে আড়াইশো টাকা, বিভিন্ন রেঞ্জের সিডি পাওয়া যায় চাঁদনীতে। পরিসংখ্যান বলছে, চাঁদনী মার্কেট থেকে প্রতিদিন গড়ে শুধু সানি লিওনেরই দুশোটি করে পর্নোমুভির সিডি বিক্রি হয়।

পর্নোগ্রাফি বা নীলছবি দেখার প্রবণতা বেড়ে চলেছে বিশ্বজুড়ে। মোবাইল, ট্যাবের যুগে পর্নোগ্রাফি দেখার জন্য আর নির্জনতা খুঁজতে হয় না। তালুবন্দি মুঠোফোনে চাইলেই হাজির রগরগে ভিডিও। হাতের আড়ালেই তৈরি হয়ে যায় নিষিদ্ধ নির্জনতা। মন সেঁধিয়ে যায় আদিম রিপুর অমোঘ আকর্ষণে। পর্নোগ্রাফি দেখার অদম্য বাসনায় গা ভাসিয়েছে আমাদের দেশও।  

গুগলে শুধু PORN শব্দটি টাইপ করলে ৮৬ কোটি রেজাল্ট শো করে

ইন্টারনেটের অফুরান ভাণ্ডারে শুধু পর্নোগ্রাফিই রয়েছে কম করে ২০ কোটি

বিশাল জনসংখ্যার দেশ ভারতও এর প্রভাব থেকে মুক্ত থাকে কীভাবে?  সমীক্ষা বলছে, আমাদের পুরো দেশই এখন পর্নোগ্রাফিতে বুঁদ। নীল ছবির ৯০ লক্ষ দর্শক রয়েছে শুধু মোবাইলেই।

যা পুরো ইন্টারনেট ট্রাফিকের ৩০ শতাংশ। এদেশের বড় সংখ্যক নাগরিক ইন্টারনেটে পর্নোগ্রাফির নিয়মিত কাস্টমার। ভারতে সবচেয়ে ভিসিটেড একশোটি সাইটের ৩টি হল পর্ন ওয়েবসাইট।

আর এর ফলস্বরূপ পর্নোগ্রাফি দেখায় বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে ভারত। গুগলের ওই সমীক্ষায় পাকিস্তান রয়েছে এক নম্বরে। স্মার্টফোন, সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইট আর হাই স্পিড ডাটা সার্ভিস পর্ন ভিডিও আদানপ্রদানের বিষয়টিকে সহজ করেছে। ফলে অনায়াসে স্কুল ছাত্র থেকে সিনিয়র কর্পোরেট অফিসার, সবার কাছে রগরগে ভিডিও পৌছে যাচ্ছে অনায়াসে। দেওয়ান লিখনটাও তাই স্পষ্ট। গুগলের সমীক্ষা বলছে, সারা বিশ্বে যে দশটি দেশে সবচেয়ে বেশি পর্ন ভিডিও দেখা হয়, তার মধ্যে সাতটি শহর ভারতের। এই তালিকায় রয়েছে আমাদের কলকাতাও।

http://zeenews.india.com/bengali/kolkata/sunny-leone-porn-saling-like-hot-cake-in-kolkata_124523.html

বিনিয়োগের উপযুক্ত পরিবেশ তৈরির বার্তা দিয়ে আত্মপ্রকাশ বিজেপির কর্মচারী সংগঠনের  

এককথায় নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিল বিজেপি। সারা দেশে এই প্রথম কোনও রাজ্যে সরকারি কর্মচারীদের মধ্যে সংগঠন তৈরি করল দল। ...  আরও»

কিটস ও শেক্সপিয়রের জমানার সঙ্গে ভাল সম্পর্ক ছিল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের - মমতার বক্তব্যে বিভ্রান্তি

মুখ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্য শুনে অনেকে বলছেন, কিটস, শেক্সপিয়র, রবীন্দ্রনাথ - এঁদের মধ্যে তো বহু বছরের ব্যবধান। কী বোঝাতে চাইলেন মুখ্যমন্ত্রী, বলতে পারবেন তিনিই, বলছেন শিক্ষাবিদদের একাংশ। ... আরও»

বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন অলকা-কবিতা?  

বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করলেন গায়িকা অলকা যাজ্ঞিক। কুমার শানুর দাবি, তাঁকে এসএমএস করে এই ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন অলকা। বিজেপি সূত্রের দাবি, শুধু অলকাই নন, খুব তাড়াতাড়ি তাদের দলে যোগ দিতে পারেন আর এক গায়ি ...  আরও»

http://abpananda.abplive.in/kolkata/


No comments:

Post a Comment

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...

Welcome

Website counter

Followers

Blog Archive